কিডনি সুরক্ষায় লেবু পানি

লেবু (Lemon) । বৈজ্ঞানিক নামঃ Citrus limon

লেবু আকারে ছোট হলেও আমরা ঠিক কত টুকু জানি এই উপকারিতা। লেবু এখন সব সময়ই পাওয়া যায়। আমরা সাধারণত খাবারের স্বাদ বাড়াতে বা শরবত তৈরি করার জন্য লেবু ব্যবহার করি। কিন্তু এর উপকারিতা এখানেই শেষ না। লেবুতে আছে ভিটামিন সি এবং খনিজ উপাদান যা আমাদের হৃদযন্ত্রের ধড়ফড়ানি কমানো থেকে ফুসফুসকে ঠিকভাবে কাজ করতে পর্যন্ত সাহায্য করে লেবু। সকালে খালি পেটে এক গ্লাস লেবুর রস পান করুন। এরপর ১৫ থেকে ৩০ মিনিট অপেক্ষা করুন। তারপর সকালের নাস্তা খান। এর ফলে শরীর অধিক পরিমাণে পুষ্টি শোষণ করতে সক্ষম হবে। লেবুতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি ও ফাইবার।

লেবুর রসে নানান উপকারিতাঃ 

  • লেবুর রস চোখের স্বাস্থ্য নিয়ন্ত্রণ করে।
  • লেবুর রস শরীরের কোষ্ঠকাঠিন্যও দূর করে।
  • উচ্চ রক্তচাপ কমাতে লেবুর পানি অনেক সয়াহক।
  • হাড় জয়েন্ট ও মাসল পেইন কমায় দ্রুত।
  • বিষণ্ণতা ও উৎকণ্ঠা দূর করতে লেবু পানি বেশ কার্যকর।
  • লেবুর রস হজমে ব্যাপক সাহায্য করে এবং হজম শক্তি বাড়ায়।
  • লেবু ক্যান্সারের ঝুঁকি কমায় এবং স্তন ক্যান্সার প্রতিরোধে প্রচুর কাজ করে।
  • প্রতিদিন লেবুর পানি করলে বুক জ্বলা পড়া দূর হয়।
  • মুখের ব্রন এবং ব্রনের দাগ সরানোর জন্য লেবুর রস ত্বকে মাখা একান্ত দরকার
  • নিয়মিত লেবুর রস গ্রহণে কিডনিতে পাথর হওয়া থেকে রক্ষা যায়।
  • লেবুর সাইট্রিক অ্যাসিড কিডনিতে ‘ক্যালসিয়াম অক্সালেট’ নামক পাথর গঠনে বাধা দেয়।
  • এটি মানসিক চাপ কমাতে ও মেজাজ ফুরফুরা করতেও সহায়ক ভূমিকা পালন করে।
  • লেবুতে বিদ্যমান সাইট্রিক অ্যাসিড কোলন, পিত্তথলি ও লিভার থেকে বর্জ্য পদার্থ বের করতে সাহায্য করে।
  • নিয়মিত লেবুর পানি পেট পরিষ্কার ও ভালো টয়লেট হতে সহায়তা করে।
  • শরীরের পি এইচ লেভেল উন্নত করে। পি এইচ লেভেল যত উন্নত, শরীর রোগের সাথে লড়াই করতে তত সক্ষম।
  • লেবুর পানি দাঁতের সমস্যা প্রতিরোধে সহায়তা করে। দাঁত ব্যথা কমায়।
ওজন হ্রাসঃ লেবুতে প্রচুর পরিমাণে ফাইবার বা আঁশ রয়েছে। যা ক্ষুধার বিরুদ্ধে যুদ্ধ করে। এক গবেষণায় দেখা গেছে, যারা খালি পেটে লেবুর রস খান, তাদের ওজন দ্রুত হ্রাস পায়।

গর্ভবতী নারীঃ গর্ভবতী নারীদের জন্য খুবই ভালো লেবু পানি। এটা শুধু নারীর শরীরই ভালো রাখে না। বরং গর্ভের শিশুর অনেক বেশি উপকার করে। লেবুর ভিটামিন সি ও পটাশিয়াম শিশুর হাড়, মস্তিষ্ক ও দেহের কোষ গঠনে সহায়তা করে। মাকেও গর্ভকালে রোগ বালাই থেকে দূরে থাকে।

 

এছাড়াও নখের যত্নে , ঠোঁটের যত্নে, ত্বকের যত্নে, বলিরেখা দূর করতে, কনুই-হাঁটুর যত্নে, ময়েশ্চারাইজার হিসেবে,  ডিওডরেন্ট হিসেবে, ব্ল্যাকহেড দূর করতে, ত্বকের সৌন্দর্য বৃদ্ধিতে এবং চুলের যত্নে লেবুর রসের অবদান আছে। শুরু করে দিন এবং অন্যকেও উৎসাহ দিন। 

ছবি ও তথ্য সূত্রঃ ইন্টারনেট, গুগোল, জার্নাল পেপার, নিউজ, ব্লগ।

# দিন শেষে মেডিসিন থেকে দূরে থাকুন #

 

আপনার যে কোন মূল্যবান মতামত ও পরামর্শ দিতে পারেন। পরবর্তীতে কি বিষয় নিয়ে লেখা চান সেটিও জানাতে পারেন।

Asive Chowdhury | Facebook | Twitter | LinkedIn | Google Site | Google Local Guides | Google Plus | YouTube

Google Site | Wikipedia | Instagram | Asive’s Blog

Email: ac.papon@gmail.com, Website: www.asive.me