কেএফসির প্রতিষ্ঠাতার ব্যর্থতার গল্প ও সফলতা

শুধু সফলতাই নয়, মাঝে মধ্যে ব্যর্থতার গল্পও পড়ুন। নিজেকে অনুপ্রেরনা দিতে পারবেন। পৃথিবীতে যে যত বেশি সফল তার তত বেশি ব্যর্থতার গল্পও আছে। ব্যর্থতার গল্প ছাড়া সফলতা সম্ভব নয়। সফলদের গল্প পড়ুন, সফলদের কথা পড়ুন, জানার জন্য ও শেখার জন্য। পজেটিব মাইন্ড সেট তৈরি করুন। অন্যের ক্ষতি না করে কিভাবে সাহায্য করবেন আপনার পজিশন থেকে তা ভাবুন। সাহায্য করতে না পারেন কখনও ক্ষতি করবেন না। নিজের উপর ও আল্লাহ্‌র উপর ভরসা রাখুন। সিদ্ধান্ত নিন এবং সিদ্ধান্ত নেওয়ার যোগ্যতা তৈরি করুন। লার্ন লার্ন এবং লার্ন [এর কোন বিকল্প নেই] একজন উদ্যোক্তা হওয়ার জন্যও আপনাকে প্রতিদিন অনেক অনেক পড়তে হবে, জানতে হবে। শুধু একাডেমি বই এর উপর পড়ে থাকবেন না, ভিন্ন বই পড়ুন। পড়ার জন্য পড়বেন না, জানার জন্য বা শিখার জন্য পড়ুন। বাহিরের জগতকে জানার চেষ্টা করুন, নিজের গন্ডি থেকে বের হয়ে আসুন।

কি ঘটেছিল কেএফসি এর প্রতিষ্ঠাতা Colonel Sanders এর জীবনে

  • মাত্র ৫ বছর বয়সে তিনি বাবাকে হারান
  • ১৬ বছর বয়সে স্কুল থেকে ঝড়ে পড়েন
  • ১৭ বছরের মধ্যে ৪টি চাকরি হারান
  • ১৮ বছর বয়সে বিয়ের পিঁড়িতে বসেন
  • ১৯ বছর বয়সে তিনি বাবা হন
  • ২০ বছর বয়সে তার স্ত্রী কন্যা কে নিয়ে তাঁকে ফেলে রেখে চলে
  • ১৮ – ২২ বছরের সময়ে রেললাইনের কন্ডাকটর হিসেবে চাকরি করেন
  • তারপর সেনাবাহিনীতে যোগ দেন, সেখানে ক্লিন এর কাজ করেন
  • ‘ল’ স্কুলে আবেদন করেন এবং রিজেক্ট হন
  • ইনস্যুরেন্স কোম্পানীতে সেলস এ কাজ শুরু করেন কিন্ত ব্যর্থ হন
  • অবশেষে ছোট্ট এক ক্যাফেতে রাধুনী এবং ডিস ক্লিন এর চাকুরী নেন
  • ৬৫ বছর বয়সে তিনি অবসর নেন
  • অবসরে যাবার প্রথম দিন সরকারের কাছ থেকে ১০৫ ডলারের চেক পেয়েছিলেন
  • তিনি ভাবেন সরকার মনে করেছেন তিনি নিজেকে প্রমান করতে ব্যর্থ হয়েছেন
  • আত্মহত্যা করার সিদ্ধান্ত নেন, কারন এর জীবনের কোন মানে নেই
  • একটি গাছের নিচে বসে জীবনে কি অর্জন করেছেন হিসাব করতে বসেন
  • হঠাৎ তাঁর কাছে মনে হল জীবনে এখনো অনেক কিছু করার বাকি
  • তিনি একটি কাজ খুবই ভালো পারেন যা অনেকের চেয়ে আলাদা – রান্না করা
  • তিনি ৮৭ ডলার ধার করলেন সেই সরকারের দেওয়া চেকের বিপরীতে আর কিছু মুরগী কিনে এনে নিজের রেসিপি দিয়ে সেগুলো ফ্রাই করলেন
  • এরপর Kentucky তে প্রতিবেশীদের দুয়ারে গিয়ে ফ্রাইড চিকেন বিক্রি করেন
  • এভাবেই জন্ম নিল KENTUCY FRIED CHICKEN তথা KFC এর
  • যদিও ৬৫ বছর বয়সে তিনি আত্মহত্যা করতে চেয়েছিলেন
  • আর ৮৮ বছর বয়সে এসে Colonel Sanders বিলিওনার হয়ে গেলেন
  • বর্তমানে KFC সারা বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তর রেস্তোরা চেইন
  • বিশ্বের ১২৩ দেশের প্রায় ২০০০০+ স্থানে KFC এর ব্রাঞ্চ আছে
  • আর এভাবেই স্মরণীয় হয়ে আছেন KFC এর প্রতিষ্ঠাতা হিসেবে

হতাশ হবার কিছু নেই, এগিয়ে যান ! নিজের উপর আস্থা রাখুন। যা ভালো লাগে তাই করুন। লেগে থাকুন আর অন্যকে হেল্প করুন। এভাবেই জন্ম নিবে আরও অনেক KFC এর গল্প আপনার হাত ধরে।

ছবি ও তথ্যঃ গুগোল, সোশ্যাল মিডিয়া, নিউজ, ব্লগ ও বাংলা উইকিপিডিয়া


লেখক ও গবেষক – প্রকৌশলী আছিব চৌধুরী

“Love yourself & you will get a way how to live” – Asive Chowdhury

# মেডিসিন থেকে দূরে থাকুন, নিয়মিত শরীর চর্চা করুন এবং সুস্থ্য থাকুন #

আপনার যে কোন মূল্যবান মতামত ও পরামর্শ দিতে পারেন। পরবর্তীতে কি বিষয় নিয়ে লেখা চান সেটিও জানাতে পারেন ইমেইলের মাধ্যমে (asive.me@gmail.com)

My Research Publication in International Journal | About Asive Chowdhury Learn with Asive | Facebook | Twitter | LinkedIn | Instagram | Blog Spot YouTube | BudgerigarsWiki

I am a Google Local Guide | Wikipedia | Asive’s Blog

I am in Flicker | I am in Google Maps | I am in wikipedia Commons |I am a Designer | I am in Google Site

Email: asive.me@gmail.com, Web: asive.me